শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন

ধুলাসারে তিন ছেলে এক মেয়ে থাকতে ও নিজের হাতে রান্না করে খেতে হয় আব্দুর রব মিয়ার! 📺 Matrijagat TV

ইমাম হোসেন হিমেল স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ১৫ মে, ২০২০

ধুলাসার ইউনিয়ানের,৩ নং ওয়ার্ডে বসবাস

আব্দুর রব (৭০),পিতা মৃত নুরমিয়া, মাতা, জহুরা খাতুন, গ্রাম ধুলসার, তিন ছেলে একমেয়ে।

রাস্তার পাশে বসবাস করে আসছেন আব্দুর রব মিয়া,কাঁচা ঘরে ভাঙ্গা বেড়ায় থাকছেন স্বামী স্ত্রী দীর্ঘ দিন তাদের এখানে বসবাস , দিন যত যাচ্ছে বয়স তত বাড়ছে কস্টটা ও ঘিরে ধরছে দুজনকে স্ত্রী অন্ধ থাকায় রান্না কাজটা তাকেই করতে হয় ঘর গোছানো থেকে শুরু করে স্ত্রী গোসলের পানিটা সহ এনে দিতে হয় রব মিয়ার।কলাপাড়া উপজেলার ধুলসারে তাদের বসবাস।

রব মিয়া জানান, আমরা দুই স্বামী স্ত্রী এখানে থাকি আমার স্ত্রী অন্ধ চার বছর হয় কিছু দেখতে পায়না, আমাকে ঘরের সব কাজ করতে হয়, ছেলে মেয়ের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার ছেলেরা আমার খোঁজ খবর নিচ্ছে না তারা অলাদা থাকেন, অনেকবার তাদের বলছি তোমাদের সাথে নিয়ে নাও আমাদের কিন্তু নিচ্ছে না। মাসে দুই একবার আসে কিভাবে আমাদের দিন যাচ্ছে সেটা জানতে চাইনি কোন দিন, আমাদের দুঃখ ওরা বুঝেনা। এই বয়সে আমার নিজের অন্যোর সহযোগিতায় চলার কথা সেখানে আমি কাউকে সহযোগিতা করছি নিজের খুব কস্ট হয় কি করবো আল্লাহ যা করেন বান্দার ভালোর জন্যই করেন এই বিশ্বাস নিয়েই বেঁছে আছি।

সরকারী অনুদানের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন আমার ১টা বয়স্ক ভাতার কার্ড আছে দুইবার পেয়েছি, কিছু দিন আগে ১০ কেজির চাল পেয়েছি, আমরা কাজ না করতে পাড়ায় এই ইউনিয়ন পরিষদের ত্রানের আশায় থাকতে হয় আমাদের, বাহিরে মাএ ৯ শতাংশ জমি আছে আমার এই টুকু জমি দিয়ে কি আর ১ বছরের খাবারের ধান পাওয়া যাবে তাই পরিষদ আমাদের আশার আলো। রব মিয়া আরো বলেন এই যায়গা টুকু আমি ইউপি সদস্য বাহাদুর ভূইয়ার সহযোগিতায় পেয়েছি, আমি দোয়া করি তার জন্য এই যায়গা টুকু না পেলে কি হত আল্লাহ ভালো জানেন, আজ সম্পদ নেই বলে ছেলে মেয়েরা ও দুরে থাকে ।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে তিনি একটা ঘরের জন্য আবেদন করেন, এই শেষ বয়সে একটু ভালো থাকতে চান আব্দুর রব মিয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
টিভি চ্যানেল
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581