সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০২:২২ অপরাহ্ন

ডুইপে অর্থ পরিশোধের ২৫ বছরেও প্লট বুঝে পাননি অসহায় রোকেয়া বেগম

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে ঢাকা শহর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (ডুইপ) এর নিম্নবিত্ত জনগণের জন্য আবাসিক প্লট বরাদ্দের আবেদন ও অর্থ পরিশোধের ২৫ বছরের বেশি সময় পার হলেও এখনো প্লট বুঝে পাননি অসহায় রোকেয়া বেগম (৪৩), স্বামী মোঃ আব্দুল হালিম, বর্তমান ঠিকানা বস্তি নম্বর ১২/১ রোড নং ৩, ব্লক-এ, সেকশন- ২ মিরপুর ঢাকা ১২১৬।

প্লটের আশায় প্রতিদিন কর্মকর্তাদের রুমে রুমে ধরনা দিলেও প্লট পাওয়ার বিষয়ে নিশ্চিত কিছু বলছেন না ঢাকা শহর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (ডুইপ) এর কমিউনিটি ডেভলপমেন্ট আফিসার মোছাঃ মমতাজ বেগম সহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, ঢাকা শহর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (ডুইপ) এর অধীনে ১৯৯৫ সালে নিম্নবিত্ত জনগণের জন্য আবাসিক প্লট বরাদ্দ দেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। এ আবাসিক প্লটের জন্য ১৯৯৫ সালে আবেদন করেন অসহায় রোকেয়া বেগম। ২৫ বছরেও উন্নয়ন প্রকল্পের প্লট বরাদ্দ বুঝে পাননি। ডুইপের কমিউনিটি ডেভলপমেন্ট আফিসার মোছাঃ মমতাজ বেগম অসহায় রোকেয়া বেগমের কাছে টাকা দাবি করে আসছে।

রোকেয়া বেগম অভিযোগ করে বলেন, ঢাকা শহর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (ডুইপ) এর কমিউনিটি ডেভলপমেন্ট আফিসার মোছাঃ মমতাজ বেগম আমার কাছে টাকা দাবি করে আসছে আমি সেই টাকা না দেওয়ার জন্য প্লট বুঝিয়ে দিচ্ছে না। গত ২৫ বছর আগে মানুষের বাসায় কাজ করে এ টাকা পরিশোধ করেছি একটি প্লট বরাদ্দের জন্য। এখনো প্লট বুঝে পাইনি, কবে পাব তারও কোনো নিশ্চয়তা নেই।

ঢাকা শহর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (ডুইপ) এর কমিউনিটি ডেভলপমেন্ট আফিসার মোছাঃ মমতাজ বেগম টাকা দাবি করার কথা অস্বীকার করে বলেন, এই টাকার কথা বলে বিকৃত করার জন্য অপচেষ্টা চালাচ্ছে মোছাঃ রোকেয়া বেগম।

ঢাকা শহর অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প (ডুইপ) এর ম্যানেজার মোঃ আব্দুর রউফ বলেন, টাকা দাবি করার কোন প্রুফ দিতে পারেন তাহলে আমি বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আবেদন করব। এবং মোছাঃ মমতাজ বেগমের স্বভাব চরিত্র নিয়ে আমি নিজেই হতাশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Developed BY Matrijagat TV
matv2425802581