শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১০:৩১ অপরাহ্ন

গাইবান্ধা সদর উপজেলার কামারজানি এবং ফুলছড়ির বালাসীঘাট ও তিস্তামুখঘাটের ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়ে হিন্দুধর্মাবলম্বীদের অষ্টমী স্নান মহোৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রানা ইস্কান্দার রহমান। গাইবান্ধা জেলা ব্যুরো প্রধান।
  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ, ২০২৩

গাইবান্ধা সদর উপজেলার কামারজানি এবং ফুলছড়ির বালাসীঘাট ও তিস্তামুখঘাটের ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়ে হিন্দুধর্মাবলম্বীদের অষ্টমী স্নান মহোৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৯শে মার্চ) গাইবান্ধা সদর উপজেলার কামারজানি এবং ফুলছড়ি উপজেলার বালাসীঘাট ও তিস্তামুখঘাটে ব্রহ্মপুত্রের নদীর পাড়ে বালুচরে ঐতিহ্যবাহী অষ্টমী মেলার মহোৎসব অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে ব্রহ্মপুত্র নদের পাড় পুণ্যার্থীর পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে। ভোর থেকেই নদীর তীরে অষ্টমী পুণ্যস্নানে যোগ দেয় লাখো শিশু-নারী-পুরুষ। অষ্টমী স্নান মহোৎসব উপলক্ষে ব্রহ্মপুত্রের নদীর পাড়ে বালুচরে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের গঙ্গাদেবীর পূজার আয়োজন করা হয়। এদিকে ভোর থেকেই বিপুল সংখ্যক হিন্দু সম্প্রদায়ের পুণ্যার্থী ব্রহ্মপুত্র নদে স্নান সেরে গঙ্গা দেবীর পূজা অর্চনা করে। ভোর ৫টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত ছিল স্নানের সবচেয়ে ভালো লগ্ন। চৈত্র মাসের কৃষ্ণ পক্ষের চতুর্দশী তিথির দিনেই এই অষ্টমী মেলা ও গঙ্গা দেবীর পূজা অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে স্নান পুণ্যার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়। প্রতিবছরের ন্যায় এবারও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বিপুলসংখ্যক স্নান পুণ্যার্থী ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়ে এসেছেন। সনাতন ধর্মাবলম্বীরা দেশ ও জাতির মঙ্গলসহ পারিবারিক শান্তি কামনা করে অনুষ্ঠিত হয় অষ্টমীর পুণ্য স্নানোৎসব। স্নান উৎসবকে কেন্দ্র করে নদের পাড়ে দুই দিন ধরে লোকজ মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মেলায় লোকজ পণ্য, শিশুদের খেলাধুলার জিনিসপত্রসহ বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রীর পসরা সাজান দোকানিরা। এবার স্নানে অংশ নিতে আসা মানুষদের সুবিধার জন্য স্থানীয় প্রশাসন বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581