মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:১৮ পূর্বাহ্ন

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

রিপোর্টারঃ-মোঃসুজন আহাম্মেদ রাজ 
  • আপডেট টাইম বুধবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

 

রিপোর্টারঃ-মোঃসুজন আহাম্মেদ রাজ

 

 

জাতীয় করোনা টিকা ব্যবস্থাপনা টাস্কফোর্সের সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক বলেছেন, ‘এখন থেকে ১২ বছর বা তার বেশি বয়সী যে কেউ এখন থেকে দেশব্যাপী যেকোনো কেন্দ্রে কোনো রেজিস্ট্রেশন বা নথিপত্র ছাড়াই প্রথম ডোজ করোনা টিকা নিতে পারবেন।’

 

আজ বুধবার কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

 

শামসুল হক বলেন, ‘২৬ ফেব্রুয়ারি হবে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়ার শেষ তারিখ। তবে এর আগে যত বেশি সম্ভব মানুষকে আমরা টিকার আওতায় আনতে চাই। প্রতিটি ইউনিয়ন, উপজেলা, পৌরসভা এবং সিটি করপোরেশন এলাকায় অতিরিক্ত টিকাদান কেন্দ্র থাকবে। ২৬ ফেব্রুয়ারিও টিকা নিতে রেজিস্ট্রেশন বা জন্ম নিবন্ধন লাগবে না। এর আগে যদি কেউ রেজিস্ট্রেশন করে থাকেন কিন্তু তিনি এখনও এসএমএস পাননি, তাহলে তিনিও কেন্দ্রে চলে যাবেন। অর্থাৎ এসএমএসর জন্য অপেক্ষা করবেন না। এসব ব্যাপারে কেন্দ্রে কেন্দ্রে নির্দেশনা দেওয়া আছে।’

 

ডা. শামসুল ইসলাম বলেন, ২৬ ফেব্রুয়ারি শেষদিন প্রথম ডোজের টিকাদানের জন্য বড় ধরনের ক্যাম্পেইন হবে। একদিনে এক কোটি মানুষকে সফলভাবে টিকাদানের জন্য অতিরিক্ত জনবল নিয়োগ করা হচ্ছে। ১২ বছরের বেশি বয়সী মোট জনসংখ্যার ৭০ শতাংশ অর্থাৎ ১২ কোটি মানুষকে টিকার আওতায় আনার লক্ষ্যেই টিকাদান কর্মসূচি জোরদার করা হচ্ছে।’

 

শামসুল ইসলাম বলেন, ‘২৬ ফেব্রুয়ারি ইউনিয়ন পর্যায়ে তিনটি করে কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। প্রতিটি উপজেলার হাসপাতালে নির্ধারিত যে টিকা কেন্দ্র রয়েছে, তার বাইরে অতিরিক্ত পাঁচটি করে মোবাইল টিম থাকবে। জেলা পর্যায়ে নির্ধারিত টিকাকেন্দ্র ছাড়াও ২০টি করে অতিরিক্ত মোবাইল টিম থাকবে। এ ছাড়া ওয়ার্ড পর্যায়ে তিনটি করে টিম কাজ করবে।’

 

শামসুল ইসলাম আরও বলেন, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি এবং গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রতিটি জোনে ৩০টি করে অতিরিক্ত টিম থাকবে। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্রতিটি জোনে ৪০টি, বরিশাল, সিলেট, কুমিল্লা এবং ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের প্রতিটি জোনে ৬০টি করে টিম কাজ করবে।

 

এ ছাড়া খুলনা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও রংপুর সিটি করপোরেশনের প্রতিটি জোনে ২৫টি করে টিম টিকাদানের জন্য থাকবে। উপজেলা ও জেলার প্রতিটি কেন্দ্রে ৩০০ এবং সিটি করপোরেশন এলাকায় ৫০০ লোককে টিকাদানের টার্গেট থাকবে। ওইদিন টিকা নিতে কোনো রেজিস্ট্রেশন বা জন্ম নিবন্ধন সনদ লাগবে না বলেও শামসুল ইসলাম জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Developed BY Matrijagat TV
matv2425802581