শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন

শাজাহানপুরে সাঁকো ও আন্ডারপাশ ওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন।

হুমায়ূন আহমেদ
  • আপডেট টাইম শনিবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

শাজাহানপুরে সাঁকো ও আন্ডারপাশ ওভার ব্রিজ নির্মাণের দাবীতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন।

হুমায়ূন আহমেদ
স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া।
বগুড়ার শাজাহানপুরে জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকা আড়িয়া বাজার স্ট্যান্ডে সড়ক উন্নয়নের কাজে আশ পাশের কয়েকটি গ্রামের পানি নিষ্কাশনের তিনটি আদি সাঁকো বন্ধের প্রতিবাদ ও সাঁকো নির্মানের দাবিতে এবং স্ট্যান্ড এলাকায় আন্ডারপাশ /ওভার ব্রিজ নির্মানের দাবীতে সচেতন এলাবাসীর আয়োজনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে ৷(১৮ ফেব্রুয়ারি) শুক্রবার বিকেল ৫টায় ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের আড়িয়া বাজার স্ট্যান্ডে কাঁটাবাড়িয়া ও রহিমাবাদ গ্রামের সর্বস্তরের জনসাধারনের ব্যানারে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন , আড়িয়া রহিমাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি( সরকারী কমর উদ্দিন ইসলামিয়া কলেজ) এর সাবেক সহকারী অধ্যাপক জনাব মোঃ আওরঙ্গজেব, আড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম মন্টু, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ছমির উদ্দিন, আবু তালেব মাস্টার,৪নং আড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ড মেম্বার ও প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল বাছেদ, ৬ নং ওয়ার্ড মেম্বার সাইদুর রহমান, , আজহাজ্ব নজরুল ইসলাম , আব্দুল মজিদ, মাসুদ রানা, সাইদুল ইসলাম সচেতন এলাকাবাসীসহ সহস্রাধিক মানুষ ৷
মানববন্ধনে বক্তব্য প্রদানকালে বক্তারা বলেন,
শাজাহানপুর উপজেলার অন্যতম জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকা আড়িয়া বাজার। এখানে প্রতিদিন সকাল-বিকাল বাজার বসে। আশে পাশের লোকজন ছাড়াও দূর দুরান্ত থেকেও মানুষ বাজার করতে আসে ৷ আড়াইশ’ বছরের ঐতিহ্যবাহী এই আড়িয়া বাজার এলাকার বুক চিরে বয়ে গেছে ঢাকা-বগুড়া জাতীয় মহাসড়ক। মহাসড়কের পুর্ব পাশে আড়িয়া রহিমাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়, রহিমাবাদ সরকারি বালিকা প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাায়তুল মামুর জামে মসজিদ, স্কুল মার্কেট ও কাঁচা বাজার এবং পশ্চিম পাশে রহিমাবাদ সরকারি বালক প্রাথমিক বিদ্যালয়, আড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ ভবন, উপজেলা রিসোর্স সেন্টার (ইউআরসি) ভবন, ঐতিহ্যবাহী আড়িয়া বাজার খেলার মাঠ, শহীদ মনিরুজ্জামান পাঠাগার, শহীদ মাসুদ স্মৃতি স্মরণে নির্মিত শহীদ মিনার,জনবসতি,অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। আড়িয়া বাজার থেকে ডেমাজানীগামী লিংক রোড দিয়ে সরকারি কমরউদ্দিন ইসলামিয়া কলেজ, ডেমাজানী শ.ম.র উচ্চ বিদ্যালয়, আসাতন নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সহ পূর্ব বগুড়ার বিস্তীর্ণ এলাকার লোকজন যাতায়াত করেন। এছাড়া আড়িয়া রহিমাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রাথমিক সমাপনী, জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র এবং সরকারি কমর উদ্দিন ইসলামিয়া কলেজে এইচএসসি ও এইচএসসি (বি.এম) পরীক্ষার কেন্দ্র রয়েছে। যে পরিক্ষা কেন্দ্রে যেতে ক্যান্টনমেন্ট পাবালিক স্কুল এন্ড কলেজের পরিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিক্ষার্থীদেরকে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পারাপার হতে হয়। এছাড়া প্রতিদিনই কোমলমতি শিক্ষার্থী, অভিভাবক, শিক্ষক সহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষকে ঝুঁকি নিয়ে ঢাকা-বগুড়া জাতীয় মহাসড়ক পারাপার হতে হচ্ছে। মহাসড়াকে কোনো আন্ডারপাশ না থাকায় ক্রমেই বিপদজ্জনক হয়ে উঠছে জায়গাটি ৷ প্রায় ঘটছে মর্মান্তিক দূৰ্ঘটনা হচ্ছে প্রানহানী ৷ অনেকে বরণ করছেন পঙ্গুত্ব ৷ আড়িয়া রহিমাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি( সরকারী কমর উদ্দিন ইসলামিয়া কলেজ) এর সাবেক সহকারী অধ্যাপক জনাব মোঃ আওরঙ্গজেব বক্তব্যে বলেন , রাস্তার পশ্চিম পাশে ৪ টি গ্রামের পানি নিষ্কানের পানি ৩টি সাঁকো দিয়ে পার হচ্ছিল ৷ ফোর লাইন রাস্তার কাজের জন্য সাঁকো ৩টি বন্ধ ৷ কিছু আগে বৃষ্টির কারনে গ্রামের অনেক মানুষ জলাবদ্ধতার শিকার হয়৷ কয়েকটি বাড়ি জলাবদ্ধতায় পড়ে যায়৷ অমনতাবস্থায় সাসেক, রোড এন্ড হাই, জেলা কর্তৃপক্ষ , আওয়ামী লীগের নেতৃবন্দ সমাজের সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি পুরাতন ৩ টা সাঁকো ফিরে আনা হোক , এলাকার জলাবদ্ধতা নিরাসন করা হোক ৷ এছাড়াও রাস্তার পূর্ব ও পশ্চিম পাশে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও উচ্চ বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থীসহ নানান পেশার মানুষকে জীবনের ঝুকি নিয়ে রাস্তা পারাপার হতে হচ্ছে ৷ এমনতাবস্থায় আন্ডারপাশ ওভার ব্রিজের জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি ৷ আড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম মন্টু জানান, আমাদের আড়িয়া বাজার একটি পুরুত্বপূর্ন স্থান ৷ মুক্তিযুদ্ধের সময় বগুড়ায় প্রথম শহীদ মাসুদ শহীদ হয়েছেন ৷ সেই শহীদ মাসুদের স্মৃতি স্মরনে শহীদ মিনার ছিলো ৷ সাসেকের অনুরোধে আমরা শহীদ মিনার স্খানান্তর করেছি ৷ তারা বলেছিলেন মুক্তিযুদ্ধ কমপ্লেক্স শহীদ মিনার স্থায়ীভাবে করে দিবেন কিন্তু দুঃখের সাথে বলতে হচ্ছে আমরা আজ পর্যন্ত এই কাজের বাস্তবায়ন পায় নি ৷ আমরা কাঠের শহীদ মিনার দিয়ে ২১শে ফেব্রুয়ারি,২৬ শে মার্চ ,১৬ ই ডিসেম্বর পালন করে আসছি ৷ আমাদের প্রানের দাবি এলাকায় স্থায়ী একটি শহীদ মিনার ,এলাকার ৩টি প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে জনসাধারনের স্বার্থে আজকে প্রানের দাবি এলাকায় আমাদের আন্ডারপাশ ওভার ব্রিজ দিতে হবে ৷পরিশেষে বলেন যতক্ষন পর্যন্ত আমাদের প্রাণের দাবি পুরন না হবে ততক্ষন পর্যন্ত আড়িয়া এলাকায় কৰ্মসুচি অব্যাহত থাকবে ৷ এবিষয়ে সাউথ এশিয়া সাব-রিজিওনাল ইকোনমিক কো-অপারেশন (সাসেক) প্রকল্প-২’র নির্বাহী প্রকৌশলী মামুন কায়ছার চপল জানান, আড়িয়া বাজার এলাকায় পানি নিষ্কাশনের জন্য একটি কালভার্ট সাঁকো নির্মাণ করা হবে। আন্ডারপাস নির্মাণ করা সম্ভব না হলেও ফুট ওভার ব্রীজ নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581