বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১২:৪৩ পূর্বাহ্ন

লক্ষ্মীপুর ১৩নং দিঘলী উপ-নির্বাচনে সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার সহ আটক-২ ভোট কেন্দ্রে মারধর শিকার হন চেয়ারম্যান প্রার্থী আলতাফ হোসেন। 

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম রবিবার, ৩১ জুলাই, ২০২২

স্টপ রিপোর্টরঃ

লক্ষ্মীপুরে ১৩নং দিঘলী উপ-নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগে সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার মাহমুদ আহম্মদ ও জোর করে অন্যের ভোট দেওয়ায় নৌকার এজেন্ট মাজহারুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। বুধবার (২৭ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দক্ষিণ খাগুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক কেন্দ্র থেকে তাদের আটক করা হয়।

সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরান হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আটক মাহমুদ দিঘলী ইউনিয়নের দক্ষিণ খাগুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার এবং মাজহারুল আওয়ামীলীগের প্রার্থীর (নৌকা) এজেন্ট।

রাজাপুর মুসলিম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম জামিরতলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দিঘলী উচ্চ বিদ্যালয় ও পূর্ব জামিরতলি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, পথে পথে ভোটারদেরকে বহিরাগতরা বাধা দিচ্ছে। নৌকায় ভোট দেবে কিনা- নিশ্চিত হয়ে কেন্দ্রে যেতে দেওয়া হচ্ছে। নৌকায় ভোট না দিলে কেন্দ্রে যেতে দেওয়া হবে না বলে প্রভাব খাটানো হচ্ছে। এসব কেন্দ্রে দুপুর ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত ভোটার উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো ছিল না। এছাড়াও রাজাপুর মুসলিম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে ঘোড়া প্রতীকের এজেন্টকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

আরাফাতুন নেছা, শিল্পি আক্তার, মাহমুদা খাতুনসহ কয়েকজন ভোটারের অভিযোগ, তাদেরকে কেন্দ্রে যেতে দেওয়া হচ্ছে না। কেন্দ্রে যাওয়ার সময় বাধা দিয়ে নৌকায় ভোট দেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করছে। কোথায় ভোট দেব তা অন্যদের বলেননি বলে তাদেরকে যেতে দিচ্ছে না। পরে প্রশাসনের উপস্থিতি টের পেয়ে লোকজন সরে গেলে তারা ভোট দিতে আসতে পেরেছেন।

ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী আলতাফ হোসেন খান বলেন, আওয়ামীলীগের প্রার্থী সালাউদ্দিন চৌধুরী জাবেদের ভাই জসিম ও তার লোকজন আমাকে বেদম মারধর করেছে। আমার মোবাইল ফোন ছিনতাই করে নিয়ে গেছে। পথে পথে ভোটারদের বাধা দিচ্ছে। এজেন্ট বের করে দিচ্ছে। অন্যের ভোট আওয়ামী লীগের লোকজন নৌকায় জোর করে দিয়ে দিচ্ছে।

নৌকার প্রার্থী সালাউদ্দিন চৌধুরী জাবেদ বলেন, উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিচ্ছেন ভোটাররা। কেন্দ্রে কাউকে বাধা দেওয়া হচ্ছে না। ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী পরিবেশ নষ্ট করতে মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছেন।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরান হোসেন বলেন, অনিয়ম করায় সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার মাহমুদকে আটক করা হয়েছে। একই কেন্দ্রে জোর করে অন্যের ভোট দিয়ে দেওয়ায় নৌকা প্রার্থীর এক এজেন্টকেও আটক করা হয়। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে আমরা সতর্ক রয়েছি।

১৩নং দিঘলী ইউনিয়ন ভোটের ময়দানে প্রায় কেন্দ্রে সঙ্ঘাত লেগে থাকে ফলে অনেক কেন্দ্রে ভোটের ফলাফল বন্ধ করে দেওয়া হতো। পরবর্তী নির্বাচনে দিয়ে ফলাফল প্রকাশ হতো। এবার আর তা হয়নি সঙ্ঘাত হলেও কেন্দ্রের ভোট বন্ধ হয়নি। সর্বশেষ নির্বাচনে ফলাফল প্রকাশ হয়

সালাউদ্দিন চৌধুরী জাবেদ (নৌকা) প্রতিক পান-৩৩৫৮ ভোট প্রতিপক্ষ আলতাফ হোসেন (ঘোড়া) পান-৩৩১০ ভোট।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581