বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০১:২৩ পূর্বাহ্ন

ভাঙ্গায় আলোচিত দুই সহোদর হত্যা মামলা পুন:তদন্তের দায়িত্ব সিআইডিকে দেয়ার দাবি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ফরিদপুরের ভাঙ্গায় আলোচিত দুই ভাই হত্যাম মামলা পুন:তদন্ত ও ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানিয়েছে নিহগতের পরিবার। শনিবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন (ক্র্যাব) মিলনায়তনে আযোজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

লিখিত বক্তব্যে নিহতদের ভাই শাহীন মাতুব্বর জানান, ২০২০ সালের ২৪ আগস্ট সকাল ৭টার দিকে পূর্বপরিকল্পিত ভাবে আমার ভাই রাকিব ও শামীমকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। ঘটনায় সরাসরি জড়িতরা হলো-আমিনুল ইসলাম ওরফে গিয়াস মিয়া, কামাল মাতুব্বর, মিন্টু মাতুব্বর, মোতালেব মাতুব্বর, আফজাল মাতুব্বর, জামাল মাতুব্বর, কামাল মাতুব্বর, সালাম মাতুব্বর, সদ্দাক মাতুব্বর, মোকলেসুর রহমান হাবিব, মজিবর মাতুব্বর, মানিক মাতুব্বর, আলিম মাতুব্বর, হৃদয় মাতুব্বর, মনির সরদার, ছরো মাতুব্বরসহ আরো ৪/৫ জন। এদের মধ্যে তিনজনকে পুলিশ আটক করলেও তাদের মধ্যে সদ্দাক মাতুব্বর জামিনে বেরিয়ে যায়। এ ঘটনায় ২০২০ সালের ২৫ আহস্ট ভাঙ্গা থানায় মামলা (নং ১৮) দায়ের করা হয়।

তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামীরা আদালতে স্বাীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দেয়। এতে তারা বেশ কয়েকজনের নাম জানায়। প্রথমাবস্থায় মামলাটি থানা পুলিশ তদন্ত করলেও পরে ডিবি পুলিশ মামলাটি তদন্ত করে। তারা তদন্ত শেষে মুল আসামী আমিনুল ইসলাম ওরফে গিয়াস মাতুব্বর ও কামাল মাতুব্বরকে বাদ দিয়ে আদালতে চার্জশিট দেয়। এ বিষয়ে আদালতে নারাজী দেওয়া হলে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় পিবি আইকে। কিন্তু পিবি আইও এই মামলা তদন্ত শেষে ডিবির মতই চার্জশিট প্রদান করে। এতে আমরা নিহতের পরিবার স্বজন ও স্থানীয়রা চরমভাবে হতবাগ ও অসন্তোষ প্রকাশ করছি। পরে পিবি আইয়ের তদন্তের বিষয়েও আদালতে নারাজী দেওয়া হয়। বর্তমানে ফরিদপুর জজকোর্টে মামলাটি রিভিশন করা হয়েছে।

শাহীন মাতুব্বর জানান, এই মামলার প্রধান অভিযুক্ত আমিনুল ইসলাম ওরফে গিয়াস এবং কামাল মাতুব্বর এই দুজনকে পিবি আই মামলার অভিযোগ পত্র হতে বাদ দেয়ায় এলাকার সাধারণ মানুষ ও আমাদের মাঝে চরম ক্ষোভ-অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। আসামীরা প্রভাবশালী অঢেল অর্থ বিত্ত বৈভবের মালিক। ডিবি পুলিশ ও পিবি আইয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা আসামীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা পেয়ে আমিনুল ইসলাম ওরফে গিয়াস এবং কামাল মাতুব্বর- পিতা কাউল্যা মাতুব্বর এই দুই মূল আসামীকে মামলার চার্জশীট হতে বাদ দিয়েছে বলে আমরা ধারণা করছি। আমরা ন্যায় বিচার পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। অপরদিকে আসামীরা জামিনে বেরিয়ে আমাদের প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে। এতে আমাদের পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তহীনতায় ভুগছি। উক্ত মামলাটি পুন:তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের আইনের আওতায় আনতে ইতিমধ্যে পুলিশ সদর দপ্তর, ফরিদুপর পুলিশ সুপারসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বরাবরে আবেদন করা হয়েছে। এই জোড়া খুনের মামলাটি সিআইডি পুলিশের পুণঃতদন্তের মাধ্যমে দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে ন্যায় বিচার পেতে প্রধানমন্ত্রী,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইজিপির আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নিহতদের বাবা গিয়াস উদ্দিন, মা রাবেয়া বেগম, বোন বিউটি বেগম, ভাই আরী নুর মাতুব্বর ও নিহত শামীমের শিশু কন্যা সাদিয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581