মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১২:৩৮ অপরাহ্ন

বিএমএসএফকে দখল করে মাদকের আস্তানা বানাতে যারা ষড়যন্ত্র এবং চক্রান্তে লিপ্ত তাদের মুখোশ জাতির নিকট তুলে ধরতে লেখা এই কবিতা।

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

বিএমএসএফকে দখল করে মাদকের আস্তানা বানাতে যারা ষড়যন্ত্র এবং চক্রান্তে লিপ্ত তাদের মুখোশ জাতির নিকট তুলে ধরতে লেখা এই কবিতা।

 

———- “উম্মোচন”———-

 

যেখানে মাদকের বিরুদ্ধে জিরোটলারেন্স এবং যুদ্ধ ঘোষনা করেছিল সরকার;

 

সেখানে মাদকাসক্ত, মাদক ব্যবসায়ী, চাঁদাবাজ, ধান্ধাবাজ, সন্ত্রাস, নারী সাপ্লাইয়ার, সাংবাদিকদের নেতা বানানোর কি দরকার ?

 

সম্মানীয় ব্যক্তিদের চরিত্রহরন, সাংবাদিক ও সংগঠনগুলোকে ভূয়া বলে প্রচার;

 

কে দিয়েছে ক্ষমতা তাকে ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে খোঁচার।

 

বিএমএসএফ এর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ত্রাস ও ভীতি সৃষ্টি করে চালিয়েছিল সন্ত্রাসী হামলা;

 

মুখোশ তাদের এখানেই উম্মোচন, নিজেদের এখন সামলা।

 

বিএমএসএফ সাংবাদিকরা, সবাই এখন ঐক্যবদ্ধ;

তোর মুখোশ এখন সামনে এসেছে, মাতলামি করলে হবি জব্দ।

 

মদের নেশায় টাল হয়ে তুই নিজের মাথা ফাটাস;

বউ, মেয়েকে ছাড় না দিয়ে যাকে তাকে পেটাস।

 

সরকারী চাকরীর দালালি করিস, মোটা অংকের টাকায়;

 

ধরা পড়লে বুঝবি তখন, ঢুকবি যখন খাঁচায়।

 

যাকে তাকে হুমকী মারিস, না দিলে চাঁদা;

খুন করবি, গুম করবি, নিউজ করবি গাঁধা ?

 

চিটারী আর বাটপারীতে চ্যাম্পিয়ন এ্যাওয়ার্ড পাবি;

পাবলিকের গণধোলাই খেয়ে জেলখানায় তুই যাবি।

 

যারা তোর সংগ দিচ্ছে তারা কি সব তোর ?

দুদিন পরে থুথু দিলে বুঝবি ইয়াবাখোর।

 

মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে রফাদফা, লেনদেন হচ্ছে বন্ধ; যাদের কাছ থেকে মাসোয়ারা নিস লেগে গেছে দ্বন্দ্ব।

 

আস্তে আস্তে সব বেড়োবে গোমর হবে ফাঁস ;

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী খোঁজে আছে, ঢুকিয়ে দেবে বাশঁ।

ক’জন আছে ইয়াবা সাপ্লাইয়ার,ফেনসিডিলের ফাদার ;

কোন্ মেয়ে নিয়ে ফুর্তি করিস বেড়িয়ে যাবে আবার।

 

এতোকাল যাদের অত্যাচার করেছিস, করেছিস মালিকানা জমি দখল; তারা এখন জেগে উঠেছে, পড়াতে তোর গলায় শেঁকল।

 

গলায় ঝুলছে হরেক রকম মামলা, বাদী সাক্ষীদের দিস হুমকী; আদালতে তারা নালিশ জানাবে, হাজিরা দিতে গেলে বুঝবি।

 

যাদের করেছিস চরিত্রহরন, গোষ্ঠী করেছো উদ্ধার;

তারা এখন সক্রিয় সব, ভূমিকা পালন করবে যোদ্ধার।

 

এক দড়িতে বাধাঁ পড়বি অসৎ সংগের কারনে;

শুনবিনা যখন কোনো কথা, থামবিনা কোনো বারণে অনেকের ইতিহাস জানা আছে, কতো করেছি মারজোনা;

 

জাফর যদি সহযোগিতা না করতো, পিঠের ছাল এক জনারও থাকতো না।

বিএমএসএফ গড়ে তুলেছি; মফস্বল সাংবাদিকদের বাচাঁতে;

সেটা এখন ধ্বংস করবি, ছেড়ে দেবো কি জান থাকতে ?

 

কপিরাইট আছে, ট্রেডমার্ক আছে, রেজিস্ট্রেশন আছে তারপরও;

নাম, পদবী ব্যবহার করলে ছেড়ে দেবো না একচুলও।

আইনের আওতায় এসে গেলে বুঝবি ঠ্যালা কারে কয়;

জরিমানা গুনবি, জেলখাটবি, তখন বলবি, এতো জালা কেমনে সয়।

 

বিএমএসএফ কে দখল করবি, সফল হবিনা, যতো করিস চেষ্টা; এমন সব বুলি আওড়াস, বোঝাতে চাস তোদের, বাপ-দাদার কেনা এই দেশটা।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581