রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন

পল্লী মায়ের স্মৃতি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম সোমবার, ১ জুন, ২০২০

– -তাপস ওঝা
মমতায় জড়ানো স্বপ্নে রাঙানো
আমার পল্লী মাতা।
শৈশব স্মৃতি বিজড়িত-
তোমার স্নেহের আচলে বাধা।
বিলরুট কেনাল কুল-কুল তানে-,
শ‍্যামল শোভায় ঢাকা।
অঙ্গে পরেছ সাতরং শাড়ি-
রংধনু রংঙে আকা।
এমন রূপের মাধুরী হেরিয়া-
হয়ে যাই আত্মহারা।
তোমার বসনের সাত রং শাড়ি-
সাতটি পাড়েতে বাধা।

নীলাম্বরী শাড়ির পাড়ে মা-
উত্তরী শীতের বায়।
রুনু-ঝুনু রবে নূপুরের ছন্দে-
চামর দোলাত গায়।
শিউলি গাদার মিষ্টি আবেশে-
আকুল হইত প্রাণ।
সুরেন ঠাকুরের পদাবলী গানে-
ব‍্যাকুল হইত মন।
শীতলা পূজায় গো-চরন মাঠে-
অশ্ব দৌড়ের মেলা।
এসব দেখে কেটে যেত মোর –
মজার বিকেল বেলা।

হলুদ রংঙের শাড়ির পাড়ে মা -,
কৃষ্ণচূড়ার রংঙে।
শিমুল পলাশের মালা পরিতে মা-
বক্ষমাঝে দুলে।
মধ‍্য ললাটে গোলটিপ পরে-
অধরে জাগিত হাসি।
শিব-সিবানীর চড়ক দেখিতাম-
বড় বাড়িতে আসি।

সবুজ রংঙের শাড়ির পাড়ে মা-
শাপলা পদ্মের রংঙে।
কেতকী-যুথিকা মালা পরিতে মা-
নবান্নের উৎসবে।
বাস্তপূজায় আলই গেয়েছি-
পাড়ার সকল ছেলে।
গোল থালা ভরে পিঠা খেয়েছি মা-
দারে বসে দু’হাতে।
মম আবেশের মধুর স্মৃতি-
যাবে না’ক মা ভোলা।
সে সব স্মৃতি এখনো আমার-
হৃদয়ে রয়েছে জমা।

কমলা রংঙের শাড়ির পাড়ে মা-
রক্ত গোলাপ রংঙে।
যামিনী ঠাকুরের মেলায় যেতাম-
দক্ষিণ পাড়ার মাঠে।
সখা-সখী মিলে নাগর দোলায়-
খেয়েছি কত দোল।
ভুলিতে পারিনা পল্লীমাতা –
তোমার স্মৃতির কোল।
বারটি মাসে তের পার্বনে-
উৎসবের হতো রোল।
শারদীয়,শ‍্যামা,কার্তিক পূজায়
বাজিত ঢাকের বোল।
নৌকা বাইচের মেলা দেখিতাম-,
দাড়িয়ে বিকেল বেলা।
সন্ধ্যা বেলায় পূজা মন্ডপে –
আরতি নাচের দোলা।

কমলা বেগুনি শাড়ির পাড়ে মা-
তোমার আচল কোনে।
ঠাকুর দেবতাকে পূজা করিত-
গোলা বাড়ির ঐ ঘরে।
পশ্চিম আসমানে রক্তিম আভাতে-,
ডুবতো যখন রবি।
ধনঞ্জয়ের বাড়িতে গান গাইত-
মহৎ অসীম কবি।
যাত্রা,জারি,সারি,ভাটিয়ালী-.
হরি ঠাকুরের গান।
এসব শুনে নিরস মনে-
সরস হইত প্রান।

আমি তোমার অধম সন্তান –
কি’বা আছে মোর দাম?
তোমার কোলে জন্ম মাগো-
কত মহৎ গুনীজন।
তাদের কথা মনে জাগিলে-
গর্বে ভরে মা প্রান।
জগৎ জোড়া খ‍্যাতি অর্জনে-
ছড়িয়েছে তোমার নাম।
ছিনিয়ে এনেছে প্রাপ্ত সম্মান-
তোমারই যোগ্য সন্তান।

রত্নগর্ভা পল্লীমাতা –
ধন‍্য মাতা তুমি।
স্বার্থক জনম তোমার কোলেতে-,
জন্মেছি মাগো আমি।
হৃদয় পটে থাক তব স্মৃতি-
যতদিন বেচে আছি।
তোমার কোলেতে মরিবার সাধ!
মুখে নিয়ে মধুর হাসি।।

( সমাপ্ত)24/5/2020
তাপস ওঝা
প্রভাষক (দর্শন বিভাগ)
আলহাজ্ব জালাল উদ্দিন ডিগ্রী কলেজ
(খেপুপাড়া -পটুয়াখালী)
সাতপাড়,গোপালগঞ্জ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
টিভি চ্যানেল
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581