শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন

নীলফামারির কিশোরগঞ্জে গভীর রাতে বাড়ী ভিটা জবর দখলের উদ্দেশ‍্যে বাউন্ডারী বেড়া ভাংচুর।

জুন ২৯ জুন, ২০২১ মোঃ আশরাফুল ইসলাম রাজু নীলফামারী জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ২৯ জুন, ২০২১

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার পুটিমারী ইউনিয়নের কালিকাপুর (মেকরাজপাড়া) গ্রামে বসত ভিটা জবর দখলের চেষ্টা করে এবং বাউন্ডারী বেড়া ভাংচুর করার অভিযোগ উঠেছে ১.আজিবুল ইসলাম, ২.আরিফ হোসেন উভয় পিতা মৃত্যু জমসের আলী, ৩.আরজিনা বেগম স্বামী মৃত্যু জমসের আলী নামে তারা একই গ্রামের বাসিন্দা। গত ২৮ জুন-২০২১ ভোর ৬ ঘটিকায় এ ঘটনা ঘটে। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় মৌজা কালিকাপুর, জেএল নং ৩, খতিয়ান নং ১৮০৫, দাগ নং ৯৫১, জমির পরিমান ১৫ শতকের মধ্যে ১০ শতক জমি গত ৭ আগষ্ট ১৯৯৪ সালে সাব কবলা মূলে ৪ শতক ও ৮ ফেব্রুয়ারী ২০০৫ সালে ৬ শতক জমি ক্রয় করেন। ভুক্তভোগী শহিদুল ইসলাম নামীয় রেকর্ড অন্তর্ভূক্ত আছে। তিনি একই গ্রামের মৃত্য কছিম খা’র ছেলে। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী শহিদুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি গ্রামের নিরীহ একজন খেটে খাওয়া মানুষ। ফজরের নামাজ আদায় করার জন্য মসজিদ যাই। তারা লাঠি সোডা ও দেশীয় অস্ত্র সজ্জিত হইয়া অতর্কিত ভাবে বিজিন্ন প্রজাতির ফলজ বনজ গাছ ১০ টি, বাড়ীর বাউন্ডারী বেড়া ভাংচুর করে. টিনের চালা ভেংঙ্গে ফেলে দেয়। এক পর্যায়ে উঠানে থাকা গরুকে চোট মারে। ভুক্তভোগী ছেলে সুমন বলেন, আব্বা নামাযে যাওয়ার পর বিবাদী আজিবুল তার ছোট ভাই আরিফ ও তাদের মা বাড়ীতে এসে অতর্কিত ভাবে তান্ডব চালায়। তাদের হাতে দা, বটি থাকার কারণে প্রাণের ভয়ে আমরা ঘর থেকে কেউ বাহির হতে পারিনি। বিবাদী আজিবুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি বলেন,আমি একই দাগে ১ শতক জমি পাবো। অনেক দিন ধরে চাই তারা দেয় না। বাউন্ডারী বেড়া ভাংচুর করার বিষয় জানতে চাইলে বলেন, আমার জমিতে ছিল আমি ভেঙ্গে দিয়েছি। এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল বলেন, অভিযোগ পেয়েছি উভয় পক্ষের কাগজপত্র দেখে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
টিভি চ্যানেল
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581