মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৪১ পূর্বাহ্ন

ঝিকরগাছা উপজেলায় ১১ নং বাঁকড়া ইউনিয়নে “উজ্জ্বলপুর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা দাখিল মাদ্রাসা”র গাছ কাটার অভিযোগ! 📺 Matrijagat TV

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট টাইম রবিবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় ১১ নং নম্বর বাঁকড়া ইউনিয়নের উজ্জলপুর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা দাখিল মাদ্রাসার গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। উজ্জ্বলপুর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা দাখিল মাদ্রাসার সভাপতি ও অত্র মাদ্রাসার সুপারের যৌথ যোগ সাজশে এই গাছ বিক্রয়ের কাজ চলছিল।

(নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) সাংবাদিক আব্দুল জব্বার ও বিল্লাল হুসাইন,এর কাছে অভিযোগ আসলে সাংবাদিক আব্দুল জব্বার, সরেজমিনে অনুসন্ধান করতে গেলে সেখানে দেখা যায়, যে ঘটনা সঠিক, গাছ মারার চেষ্টা হচ্ছিল, আর গাছের জ্বালানি কেটে প্রায় ৪০ থেকে ৫০ মণ বিক্রি করা হয়েছে। গাছটা মারার পরিকল্পনা করছিল তবে তারা ব্যর্থ হয়ে গেল শুধু মাত্র সাংবাদিকের করনে।তবে এই গাছের ডালপালা জ্বালানি হিসেবে কেটে বিক্রি করা হয়েছে এই খবর সাংবাদিকদের কানে পৌঁছালে তারা গাছ মারা বন্ধ করে দেয় ।

উজ্জ্বলপুর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা দাখিল মাদ্রাসার সভাপতি, মোঃ আব্দুল আজিজ ও সুপার মোঃ বায়জিদ বোস্তমি সাথে মুঠোফোনে কথা বলে জানাযায় ঝিকরগাছা উপজেলায় সরকারি অধিদপ্তর বা ইউএনও কাউকে না জানিয়ে তারা নিজেরাই ম্যানেজিং কমিটি থেকে এই সিদ্ধান্ত নেয়।এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকার আমজনতা ডিসি কার্য্যলয়ে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে বলে জানা যায়। আরো জানা যায় এর আগে কমিটি দ্বারা কোন রেজুলেশন বা আলোচনা না করেই এই গাছ বিক্রয়ের প্রস্তুতি নেন।পরে জানাজানিতে বাধা আসলে হঠাৎ (৯-০২-২০২০ইং) তারিখ দুপুর ০২: ৫৫ মি: হঠাৎ রেজুলেশনের জন্য পেছনের তারিখ দিয়ে মিটিং আহবান করলে উক্ত আলোচনার মাঝে গাছ কাটার আগে না জানিয়ে এখন আলোচনা কেন? এই বাকবিতান্ত শুরু হলে হলে বহিরাগত ব্যক্তি যে কমিটির সদস্য ও নয়,অভিযোগ আছে সে মাদক ও কারবারি,আদম ব্যবসায়ী সাবেক বিএনপির আমলের সন্ত্রাসী ও নাকি তার নামে এর আগে মামলা ও আছে এই শফিকুল ইসলাম ওরফে নেদার নামে। নেদা অত্র মাদ্রাসার শিক্ষক মোঃ নজরুল ইসলাম কে প্রানে মারা র হুমকি ও নাকি দেয় সে।

আরো ও জানা যায় যে উক্ত ঘটনার সময় মাদ্রাসার বর্তমান সভাপতি মোঃ আঃ আজিজ কোন প্রকার প্রতিবাদ না করে শ্বশরীরে উপস্থিত থেকে নজরুল ইসলাম কে বহিস্কারের হুমকি ও দেয় ছিদ্দিক হোসেন (কমিটি মাদ্রাসা ) এই ঘটনার পর মাদ্রাসার সুপারের নিকট মুঠোফোনে যানতে চাইলে তিনি বলেন,যে এই ঘটনার সময় আমি উপস্থিত ছিলাম না,আমি জানিনা।মোবাইল নং 01719730109 ( সুপার মাদ্রাসা ) বলে ফোন বন্ধ করে রাখে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Developed BY Matrijagat TV
matv2425802581