সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৭:৫৬ পূর্বাহ্ন

ইসলামপুর হরিণধরা গ্রামে আদম ব্যবসায়ীর খপ্পড়ে ৭টি পরিবার

নুরনবী
  • আপডেট টাইম সোমবার, ১৫ আগস্ট, ২০২২

সৌদি আরবে পাঠানো নামে জামালপুরের ইসলামপুরে চরগোয়ালীনি হরিণধরা গ্রামের আদম ব্যবসায়ী বাপ-বেটার খপ্পরে পড়ে প্রতারণা শিকার হয়ে টাকা ফেরত না পেয়ে আদালতে আইনের আশ্রয় নিয়েছেন ভোক্তভোগী পরিবাররা।

এদিকে টাকা ফেরত না দিয়ে অভিযোক্ত আদম বেপাড়ী নিজ বাড়ি ছেড়ে আত্মগোপন করে ভোক্তভোগীদের বিরুদ্ধে আদালতে উল্টো চাদাঁবাজী ও বাড়ি ঘর ভাঙ্গা হয়রানিমূলক মামলা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

ভোক্তভোগীদের অভিযোগ, উপজেলার হরিণধরা গ্রামের আব্দুল হাকিম শেখ (৫৫)এর চার ছেলে সৌদি আরবে থাকার সুবাদে ছেলেদের যোগশাজসে আব্দুল হাকিম সম্প্রতি এলাকার নিরিহ ৭টি পরিবারের কাছে তাদের সন্তানদের বিদেশ পাঠানো নামে ৬লক্ষাধিক করে টাকা হাতিয়ে নেয়। তন্মধ্যে কয়েক জনকে ভূয়া ভিসা দিয়ে বিদেশ পাঠালেও কোন কাজ না পেয়ে পুলিশে হতে আটকসহ মানবেতর জীবন যাপন করছে তারা। এই খবর পরিবারের লোকজন জানতে পেরে পুত্রদের দেশে ফেরত আনা ও টাকা ফেরত চাইলে উল্টো টাকা না দিয়ে মিথ্যা মামলা,হামলাসহ নানাভাবে হয়রানী করছে তাদের। এলাকায় ঘটনার কোন সুরাহা না বসে ভোক্তভোগী পরিবারে উপর আদালতে হয়রানী মূলক মামলা করে গা ঢাকা দিয়েছে প্রতারক আদম ব্যাবসায়ী হাকিম

হরিণধরা গ্রামের আকছেদ আরীর ছেলে ভোক্তভোগী আশব আলীর অভিযোগ, তাকে হাকিম আলী(৫৫) বিদেশ পাঠানোর কথা বলে ৬লক্ষ টাকা বিভিন্ন উপায়ে হাতিয়ে নিয়ে বিদেশ না পাঠিয়ে টাকা গুলো আত্মসাত করেছে।

একই এলাকার আবুল কাশেমের অভিযোগ, হাকিম আলী(৫৫) ও তার বিদেশী ছেলেদের মাধ্যমে তার সহোদর ভাই কুসুম আলীকে ৬লক্ষ টাকার বিনিময়ে বিদেশ পাঠায়। কিন্তু সে বিদেশ গেলেও ভূয়া ভিসা দেওয়ায় কোন কাজ কর্ম দেয়া হয়নি। তারা বিদেশে কুসুম আলীকে একটি ঘরে আবদ্ধ রেখে নির্যাতন করেছে। ভূয়া ভিসার কারণে রাস্তায় বের হলে সৌদী আরবের পুলিশে হাতে আটক হয়েছে কুসুম আলী। এর পর কোথায় কিভাবে রয়েছে কুসুম আলী তার কোন কোন খোজঁ খবর নাই।

একই ভাবে অভিযোক্ত আদম বেপাড়ী হাকিম আলী(৫৫) এলাকার আরো রাশেদ, করিম, নাছির,মিজান,মেহেদীর পরিবারের নিকট ৬লক্ষাধিক টাকা করে হাতিয়ে নিয়ে বিদেশ পাঠানোর নামে প্রতারণা করে টাকা ফেরত না দিয়ে পেরে বাড়ি ঘর ছেড়ে গা ঢাকা দিয়েছে এবং ভোক্তভোগীদের বিরুদ্ধে উল্টো চাদাঁবাজী ও বাড়ি ঘর ভাঙ্গা হয়রানি মূলক মামলা দায়ের করেছে। এই সব ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চলের সৃষ্টি হয়েছে।

ভোক্তভোগীরা এব্যাপারে আইনী প্রতিকার পেতে জামালপুর কোর্টে বিজ্ঞ সি,আর,আমলী আদালতে পৃথক পৃথক ভাবে মামলা দায়ের করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
© All rights reserved © Matrijagat TV
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
matv2425802581